বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০১:৪৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
বুধবার থেকে গণপরিবহনে ভাড়া ৬০ শতাংশ কার্যকর মহেশখালীতে ৬লাখ ২২ হাজার ইয়াবা উদ্ধার উখিয়া-টেকনাফ থেকে ৬ষ্ঠ দফায় ভাসানচরের পথে ২৪৯৫ জন রোহিঙ্গা পেকুয়ায় পানিতে ডুবে রোজাদার যুবকের মৃত্যু চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচন: মেয়র প্রার্থী জিয়াবুলের পথসভায় মানুষের ঢল রামুর কচ্ছপিয়ায় যুবলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হেফাজতের হরতাল ঠেকাতে নেতাকর্মীদের নিয়ে দিনভর মাঠে এমপি জাফর আলম উগ্র মৌলবাদীদের রাস্তায় নামিয়ে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা থামানো যাবে না: মেয়র মুজিব রোহিঙ্গাদের ভোটার করায় কক্সবাজারে ৩ কাউন্সিলর গ্রেফতার চকরিয়া পৌর ভোট: মেয়র প্রার্থী জিয়াবুলের ‘জনতার ইশতেহার’ কমসূচি শহরজুড়ে প্রশংসা

কক্সবাজার ‘সরকারি রেড জোনে’, ২৪ জুন থেকে ১৮ দিনের সাধারণ ছুটি

সিসিএন
  • আপডেট সময় বুধবার, ২৪ জুন, ২০২০
  • ৫৪ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

পর্যটন রাজধানী কক্সবাজারসহ করোনার অতি ঝুঁকিতে থাকা দেশের চার জেলার সাতটি এলাকাকে ‘রেড জোন’ ঘোষণা করেছে সরকার। এসব এলাকায় সাধারণ ছুটি থাকবে।

মঙ্গলবার (২৩ জুন) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে কক্সবাজার, মাগুরা, খুলনা ও হবিগঞ্জের সাতটি রেড জোনে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে আদেশ জারি করে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের আদেশ মতে, কক্সবাজার জেলায় সদর উপজেলাধীন কক্সবাজার পৌরসভা, টেকনাফ উপজেলাধীন টেকনাফ পৌরসভা, উখিয়া উপজেলাধীন রাজাপালং ইউনিয়নের ২, ৫, ৬ ও ৯ নাম্বার ওয়ার্ড এবং রত্নাপালং ইউনিয়নের কোটবাজার, পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী ও থাইংখালী বাজার ‘রেড জোনে’র আওতায় থাকবে।

কক্সবাজার জেলায় এই রেড জোন কার্যকর হয়েছে ২১ জুন দিবাগত ১২টা ১ মিনিট থেকে। তা বলবৎ থাকবে ১১ জুলাই রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত। তবে কক্সবাজারে সাধারণ ছুটি কার্যকর হবে ২৪ জুন  থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত। কক্সবাজার জেলার রেড জোনে ছুটি থাকবে ১৮ দিন।

অন্য রেড জোনের মতো কক্সবাজার জেলার এসব এলাকায় বসবাসরত সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত, সংবিধিবদ্ধ ও বেসরকারি অফিস/প্রতিষ্ঠান/সংস্থায় কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ক্ষেত্রে এ ছুটি প্রযোজ্য হবে।

তবে ইতোপূর্বে গত ৬ জুন থেকে কক্সবাজার পৌরসভাকে ‘রেড জোন’ ঘোষণা করে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন ১৪ দিনের জন্য ‘কঠোর লকডাউন’ দিয়েছিল। সেই লকডাউন আগামি ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এখন সেই ‘রেড জোন’ সরকারি ভাবেও ‘রেড জোনে’ যুক্ত হলো।

এর আগে গত রোববার মধ্যরাতে ১০ জেলার ২৭টি এলাকা ও পরদিন সোমবার পাঁচ জেলার ১২ এলাকাকে রেড জোন হিসেবে তালিকাভুক্ত করে সেখানে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়।

এতে বলা হয়, ‘সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন, ২০১৮’ এর সংশ্লিষ্ট ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাপ্রাপ্ত কর্তৃপক্ষ করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে রোগের চলমান ঝুঁকি বিবেচনায় জন-চলাচল/জীবনযাত্রা নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে এই এলাকাগুলোকে রেড জোন ঘোষণা করায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সেখানে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে। এ ছুটির মধ্যে সাপ্তাহিক ছুটি অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

আদেশ অনুযায়ী এসব এলাকায় ২৪ জুন থেকে সাধারণ ছুটি থাকবে। রেড জোনের মেয়াদ হবে ঘোষণার তারিখ থেকে ২১ দিন।

আদেশ অনুযায়ী, শুধু রেড জোন ঘোষিত এলাকায় সাধারণ ছুটি কার্যকর থাকবে। রেড জোন ঘোষিত এলাকায় বসবাসরত সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত, সংবিধিবদ্ধ ও বেসরকারি অফিস/প্রতিষ্ঠান/সংস্থায় কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ক্ষেত্রে এ ছুটি প্রযোজ্য হবে।

রেড জোন ঘোষিত এলাকায় অবস্থিত সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বয়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত, সংবিধিবদ্ধ ও বেসরকারি অফিস/প্রতিষ্ঠান/সংস্থায় কর্মরত ও অন্য এলাকায় বসবাসরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ক্ষেত্রেও এ ছুটি প্রযোজ্য হবে। জরুরি পরিষেবা এ সাধারণ ছুটির আওতাবহির্ভূত থাকবে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।

করোনা মোকাবিলায় বেশি আক্রান্ত এলাকাকে রেড (লাল), অপেক্ষাকৃত কম আক্রান্ত এলাকাকে ইয়োলো (হলুদ) ও একেবারে কম আক্রান্ত বা আক্রান্তমুক্ত এলাকাকে গ্রিন (সবুজ) জোন হিসেবে চিহ্নিত করেছে সরকার। রেড জোনকে লকডাউন করা হচ্ছে, সেখানে থাকছে সাধারণ ছুটি। ইয়োলো জোনে যেন আর সংক্রমণ না বাড়ে সেই পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। সতর্কতা থাকবে গ্রিন জোনেও।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019-2020 | কক্সবাজার ক্রাইম নিউজ
Theme Customized By Shah Mohammad Robel