বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
বুধবার থেকে গণপরিবহনে ভাড়া ৬০ শতাংশ কার্যকর মহেশখালীতে ৬লাখ ২২ হাজার ইয়াবা উদ্ধার উখিয়া-টেকনাফ থেকে ৬ষ্ঠ দফায় ভাসানচরের পথে ২৪৯৫ জন রোহিঙ্গা পেকুয়ায় পানিতে ডুবে রোজাদার যুবকের মৃত্যু চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচন: মেয়র প্রার্থী জিয়াবুলের পথসভায় মানুষের ঢল রামুর কচ্ছপিয়ায় যুবলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হেফাজতের হরতাল ঠেকাতে নেতাকর্মীদের নিয়ে দিনভর মাঠে এমপি জাফর আলম উগ্র মৌলবাদীদের রাস্তায় নামিয়ে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা থামানো যাবে না: মেয়র মুজিব রোহিঙ্গাদের ভোটার করায় কক্সবাজারে ৩ কাউন্সিলর গ্রেফতার চকরিয়া পৌর ভোট: মেয়র প্রার্থী জিয়াবুলের ‘জনতার ইশতেহার’ কমসূচি শহরজুড়ে প্রশংসা

কক্সবাজারে খুলছে না পর্যটন স্পট ও হোটেল-মোটেল

সিসিএন
  • আপডেট সময় রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০
  • ১০৮ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত, জেলা পর্যটন স্পট ও হোটেল-মোটেল গুলো ঈদুল আযহার আগে খুলে দেয়া হচ্ছে না। তবে শনিবার কক্সবাজার পৌর শহর, টেকনাফ ও উখিয়ার কয়েকটি স্পটে সরকার ঘোষিত ‘রেড জোন’ প্রত্যাহার হলেও সবকিছু এখনই আগের মতো স্বাভাবিক হচ্ছে না। ঈদুল আযহা পর্যন্ত সব সেক্টরই চলবে ‘সীমিত আকারে’।

কক্সবাজারের দায়িত্বপ্রাপ্ত স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দিন আহমেদ শনিবার (১১ জুলাই) এমন তথ্য জানিয়েছেন।

কক্সবাজার জেলার করোনা প্রতিরোধ বিষয়ক কার্যক্রমের সমন্বয়কারি এই উর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা শনিবার কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত ‘কক্সবাজার জেলার কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সার্বিক পরিস্থিতি’ সংক্রান্ত ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন।

জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্টিত এই সভায় কক্সবাজারের কৃতিসন্তান হেলালুদ্দিন আহমেদ জানান, ঈদুল আযহার আগে জেলার প্রতিটি উপজেলা পর্যায়ে ১ লাখ ৭৪ হাজার মানুষকে ত্রাণ বিতরণ করা হবে। এই ত্রাণ কার্যক্রমে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) সমন্বয় করে কাজ করতে হবে।

হেলালুদ্দিন বলেন, ১১ জুলাই লকডাউন শেষ হলেও এখন থেকে সব কিছু সীমিত আকারে চলবে। প্রয়োজনে এলাকাভিত্তিক লকডাউনও করা হতে পারে। যেখানে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেশি পাওয়া যাবে সেখানেই নতুন করে লকডাউন দেয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, পবিত্র ঈদুল আযহায় কুরবানির পশুর হাট সামাজিক ‍দূরত্ব বজায় রাখা যায় না এমন পরিবেশে করা যাবে না। বড় কোন খোলা মাঠে পশুর হাট বসাতে হবে। তাও আবার নির্দিষ্ট কয়েকটি স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে গরুর হাট বসানোর অনুমতি দেয়া হবে।

কক্সবাজারে খুলছে না পর্যটন স্পট ও হোটেল-মোটেল

সভায় সচিব হেলালুদ্দিন জানান, কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে এখন ৪টি হাই ফ্ল্যু ন্যাজাল ক্যানোলা রয়েছে। তার সাথে আরও ৪টি যুক্ত হতে যাচ্ছে। এছাড়াও আরো ২টি যুক্ত করার চেষ্টা চলছে। এগুলোর মধ্যে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ১টি, পৌরসভার মেয়র ১টি, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মেয়র ১টি ও ডাক্তার ফরহাদ হোসেনের মাধ্যমে একজন ব্যবসায়ী দিচ্ছেন ১টি হাই ফ্ল্যু ন্যাজাল ক্যানোলা।

তিনি জানান, সদর হাসপাতালের টপ ফ্লোরে (ছাদে) ৫০ শয্যার একটি আইসোলেশন সেন্টার স্থাপনের কাজও এগিয়ে চলেছে। তাছাড়াও আগামি এক সপ্তাহের মধ্যে হাসপাতালের সেন্ট্রাল অক্সিজেন সাপ্লাই কার্যক্রমও চালু হবে।

কক্সবাজারের এই সন্তান সভায় জানান, কক্সবাজার জেলার স্বাস্থ্যসেবার পরিধি বাড়ানোর জন্য কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পূর্ণাঙ্গভাবে চালু করার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। তিনি নিজেই এই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

সভায় জানানো হয়, কক্সবাজার রুটে বিমান সার্ভিস চালু করার বিষয়েও ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

এই সভায় কক্সবাজারের তিনজন সংসদ সদস্য চকরিয়া-পেকুয়া আসনের জাফর আলম, মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের আশেক উল্লাহ রফিক ও সংরক্ষিত আসনের কানিজ ফাতেমা চৌধুরী, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমেদ চৌধুরী, শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) মোঃ মাহবুব আলম তালুকদার, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, সেনাবাহিনীর প্রতিনিধি, নৌবাহিনীর প্রতিনিধি, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. অনুপম বড়ুয়া, সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি ডা. আলমগীর মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, জেলা সদর হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্বাবধায়ক ডাঃ রফিকুস সালেহীন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, মহেশখালী পৌরসভার মেয়র মকসুদ মিয়া, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, জেলার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানগণ, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী, এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিসুর রহমান, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক, কক্সবাজার প্রেসক্লাব সভাপতি মাহবুবর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019-2020 | কক্সবাজার ক্রাইম নিউজ
Theme Customized By Shah Mohammad Robel