বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৬:৩০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
বুধবার থেকে গণপরিবহনে ভাড়া ৬০ শতাংশ কার্যকর মহেশখালীতে ৬লাখ ২২ হাজার ইয়াবা উদ্ধার উখিয়া-টেকনাফ থেকে ৬ষ্ঠ দফায় ভাসানচরের পথে ২৪৯৫ জন রোহিঙ্গা পেকুয়ায় পানিতে ডুবে রোজাদার যুবকের মৃত্যু চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচন: মেয়র প্রার্থী জিয়াবুলের পথসভায় মানুষের ঢল রামুর কচ্ছপিয়ায় যুবলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হেফাজতের হরতাল ঠেকাতে নেতাকর্মীদের নিয়ে দিনভর মাঠে এমপি জাফর আলম উগ্র মৌলবাদীদের রাস্তায় নামিয়ে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা থামানো যাবে না: মেয়র মুজিব রোহিঙ্গাদের ভোটার করায় কক্সবাজারে ৩ কাউন্সিলর গ্রেফতার চকরিয়া পৌর ভোট: মেয়র প্রার্থী জিয়াবুলের ‘জনতার ইশতেহার’ কমসূচি শহরজুড়ে প্রশংসা

চকরিয়ায় সম্পত্তির লোভে স্ত্রী-ছেলের বিরুদ্ধে কৃষককে হত্যার অভিযোগ

সিসিএন
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৩ জুলাই, ২০২০
  • ১০২ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

চকরিয়ায় সম্পত্তি ভোগের লোভে আলতাফ হোসেন (৬০) নামের এক কৃষককে গলাটিপে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে তার স্ত্রী ও সন্তানদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পুলিশ নিহতের স্ত্রী ও এক ছেলেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।

বুধবার ভোর রাতে চকরিয়া উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের বিবিরখিল সবুজবাগ এলাকায় মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত অভিযোগে আটককৃতরা হলেন- নিহত আলতাফ হোসেনের স্ত্রী রহিমা খাতুন ও ছেলে মো.মামুন।

বরইতলী ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আব্দু শুক্কুর বলেন, নিহত আলতাফ হোসেন একজন স্বাবলম্বী কৃষক। তার এক স্ত্রী, চার ছেলে ও তিন মেয়ে রয়েছে। ছেলেদের মধ্যে এক ছেলেকে বিদেশ পাঠিয়েছেন। আর তিন ছেলে বাড়িতে থাকতো। আর মেয়েদের মধ্যে দুই মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন এবং এক মেয়ের এখনো বিয়ে দিতে পারেননি।

তিনি আরো বলেন, মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি পরিশ্রম করে গেছেন। এর ফলে বেশ কিছু সম্পত্তির মালিক হয়েছেন। পাশাপাশি তার গরু-ছাগলও রয়েছে যথেষ্ট। তবে তার স্ত্রী ও ছেলে-মেয়েগুলো খুব বিলাসি প্রকৃতির। তারা সবসময় বাবার থেকে টাকা চাইতো। টাকা দিতে অপারগ হলে আলতাফ হোসেনকে মেরে ফেলার ফন্দি আটে স্ত্রী ও ছেলেরা। সর্বশেষ বুধবার ভোর রাতের কোন একসময় তাকে গলাটিপে হত্যা করা হয়।

হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই পলাশ রায় বলেন, ঘটনার খবর পাওয়ার পর নিহতের বাড়িতে যায়। এসময় আলতাফ হোসেনের মরদেহ মাটিতে পড়ে থাকতে দেখি। প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্টে তার গলায় আঘাতের চিহৃ পাওয়া গেছে।

এঘটনায় জড়িত অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্ত্রী ও তার এক ছেলেকে আটক করা হয়েছে। বাকিরা পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা যায়নি।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.হাবিবুর রহমান বলেন, আমি ঘটনাস্থলে যাচ্ছি। বিস্তারিত জেনে বলবো।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019-2020 | কক্সবাজার ক্রাইম নিউজ
Theme Customized By Shah Mohammad Robel