শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৫:০১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
যাত্রীবেশে উঠে চকরিয়ায় মহাসড়কে চলন্ত বাসে ডাকাতি, দুইজন গুলিবিদ্ধসহ আহত ১৫ খুলে যাবে উপকূলীয় চার উপজেলার সম্ভাবনার দূয়ার মানুষকে অবহেলা-তুচ্ছতাচ্ছিল্য করবেন না: প্রশাসনকে প্রধানমন্ত্রী চকরিয়ায় অবৈধ বসতি গুঁড়িয়ে দিয়ে এক একর সংরক্ষিত বনভূমি উদ্ধার স্বাস্থ্যবিধি না মানলে প্রয়োজনে কারাদণ্ড দেয়া হবে: জেলা প্রশাসক লকডাউন আর না, সচেতন হোন: সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দিন কক্সবাজারে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট ফিল্ড হাসপাতালের উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা নিয়ে জেলার ব্যাংক কর্মকর্তাদের সাথে সংলাপ যানজট নিরসনের পাশাপাশি মডেল সড়ক হবে কক্সবাজারে শিশু ধর্ষনের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

মানিকপুর-ইয়াংছা সড়কের উন্নয়নকাজ পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান

সিসিএন
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৩০ জুলাই, ২০২০
  • ৪১ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

চলতি বছরের জানুয়ারী থেকে কক্সবাজার সড়ক ও জনপথ বিভাগের অর্থায়নে ৫৮ কোটি টাকা বরাদ্দে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে বহুল প্রতিক্ষিত চকরিয়া উপজেলার বরইতলী শান্তি বাজার থেকে কাকারাা ইউনিয়ন হয়ে সুরাজপুর-মানিকপুর হয়ে ইয়াংছা সড়ক নির্মাণ কাজ।

সড়কটির নির্মাণকাজ সমাপ্তি হলে চলাচলের ক্ষেত্রে উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষ অবর্ণনীয় দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পাবে। সড়ক বিভাগের টেন্ডারে উন্নয়ন কাজটি পেয়েছেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান আরএবি আরসি প্রাইভেট লিমিটেড।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, এইবছরের মার্চ মাস থেকে দেশে মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাব ঘটে। সেই থেকে মুলত বন্ধ রয়েছে সড়কটির নির্মাণ কাজ। তবে রোজার ঈদের পর পুরোদমে শুরু করা হয়েছে সড়কটির নির্মাণ কাজ। এ অবস্থায় বুধবার ২৯ জুলাই সড়কটির সুরাজপুর-মানিকপুর অংশে নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেছেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি আলহাজ ফজলুল করিম সাঈদী।

ওই সময় নির্মাণকাজে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান আরএবি আরসি প্রাইভেট লিমিটেডের দায়িত্বরত প্রকৌশলী, প্রকল্পের কর্মকর্তা, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যরা এবং স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মী উপজেলা চেয়ারম্যানের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন।

কক্সবাজার সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর জানিয়েছেন, ৫৮ কোটি টাকা ব্যয়ে সড়কটি পুনরায় নির্মাণ করা হচ্ছে। বরইতলী শান্তি বাজার থেকে জিদ্দাবাজার-বাদশাহর টেক-মাঝেরফাঁড়ি-সুরাজপুর-ইয়াংছা পর্যন্ত সড়কটি ১৯ কিলোমিটার। এই সড়কটির বর্তমান প্রশস্থতা ১২ ফুট। এটিকে বাড়িয়ে ১৮ ফুট করা হবে। সড়কে কার্পেটিং করা হবে মেশিনের মাধ্যমে দুই ইঞ্চি পুরুত্বের। এতে সর্বোচ্চ ২০ টন ওজনের গাড়ি চলাচলের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। আর পাহাড়ি এলাকা দিয়ে যাওয়া সড়কের পাশে পাহাড়ধ্বস ঠেকাতে টেকসই আরসিসি দেওয়াল নির্মাণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019 | কক্সবাজার ক্রাইম নিউজ
Theme Customized By Shah Mohammad Robel