সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ১১:৫৫ অপরাহ্ন

বরফ নিয়ে ভোগান্তি মিল মালিকদের কারণে, মনে করেন ব্যবসায়ীরা

সিসিএন
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৪৩ বার পঠিত

কক্সবাজারে বরফের জন্য মাছ ব্যবসায়ীদের ভোগান্তির অন্ত নেই। যার কারণে ক্ষুব্দ ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা প্রতিবাদ বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করেছে। তারা মনে করেন বরফ মিল মালিকদের অতি মুনাফালোভী মনোভাবের কারণে এই দশা। এই অবস্থা থেকে উত্তরণ জরুরী মনে করে প্রতিবাদ বিক্ষোভে অংশ নেয়া ব্যবসায়ীরা।

অভিযোগ, মালিকদের সিন্ডিকেটে জিম্মি হয়ে পড়েছে ফিশিংবোট মালিক ও মৎস্য ব্যবসায়ীরা। সঠিক সময়ে বরফের যোগান না পেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ৮০ শতাংশ ব্যবসায়ী। ক্ষতি পোষাতে না পেরে অনেকে ব্যবসা বন্ধ রেখেছে। যারা ব্যবসায় আছে তারাও লোকসান গুনে চলছে। সব মিলিয়ে কক্সবাজার মৎস্য অবতরণকেন্দ্রিক ব্যবসায়ীদের ‘মন্দার দিন’ কাটছে। আর অধিক মুনাফা-খুশিতে ফুলছে বরফকল মালিকেরা।

অভিযোগ জানান, স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত বরফ খুবই নিম্নমানের। ওজনেও কম। সময় মতো পাওয়া যায় না যোগান।জেলা ফিশিং বোট মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন জানান, ১৫০ টাকার বরফ ৫০০ টাকায় কিনতে বাধ্য করে। বরফের ঘাটতি পূরণে বাইর থেকে আনতে গেলেও বাধা দেয়া হয়। স্থানীয় পর্যায়ে উৎপাদিত বরফ আকারে বড় হলেও ভেতরে পুরো ফাঁকা। ১২০ কেজি ওজনের বরফ ৩০ কেজিও হয় না। এই বরফ কিনে ক্ষতি হয় ব্যবসায়ীদের।

যার কারণে ব্যবসা টিকিয়ে রাখতে বাধ্য হয়ে চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, চাঁদপুর, খুলনা, মহিপুর থেকে বরফ কিনে আনছে ব্যবসায়ীরা। তাতেও বাধা অসাধু বরফকল মালিকদের।

বর্তমান পরিস্থিতি বরফের অভাবে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে আহরিত ইলিশ মাছ। কক্সবাজার মৎস্য অবতরণকেন্দ্র থেকে বৃহস্পতিবার দুপুরে ছবিটি ধারণকৃত।

সুত্র মতে, কক্সবাজারে ১৭ টির মতো বরফকল রয়েছে। যেখানে ২০ থেকে ২৪ কেজি ওজনের ১২০০০ পিস মতো বরফ উৎপাদন হয়। অথচ, ভরা মৌসুমে কক্সবাজারে ২ হাজার পিস বরফের চাহিদা। সংকটেও বাইর থেকে বরফ কিনে আনতে গেলে বাধার সম্মুখীন হয় মৎস্য ব্যবসায়ীরা।

এদিকে, মৎস্য অফিসে কর্মরতদের সাথে স্থানীয় বোট মালিক ও ব্যবসায়ীদের সমন্বয় না থাকায় বিশৃঙ্খলা দেখা দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কক্সবাজার মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র এলাকায় বিক্ষোভে বক্তব্য রাখেন- কক্সবাজার মৎস্য ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সভাপতি নুরুল ইসলাম চিশতি, সাধারণ সম্পাদক শফিউল আলম বাশি, জেলা ফিশিং বোট মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, মৎস্য ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের সভাপতি ওসমান গণি টুলু, সাধারণ সম্পাদক জানে আলম পুতু, ব্যবসায়ী নেতা নাসির উদ্দিন বাচ্চু।

বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএফডিসি) কক্সবাজার কেন্দ্রের প্রধান মোঃ জাহিদুল ইসলামের সাথে সাক্ষাৎ করেন বিক্ষোভ কর্মসূচি শেষে ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ। ভবিষ্যত করণীয় ঠিক করতে উভয় পক্ষ একমত হন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019-2020 | কক্সবাজার ক্রাইম নিউজ
Theme Customized By Shah Mohammad Robel