শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ১২:২৯ পূর্বাহ্ন

কক্সবাজারে ২৯৯টি মন্ডপে চলছে দূর্গা পূজার প্রস্তুতি

সিসিএন
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০
  • ২৬ বার পঠিত

পর্যটন নগরী কক্সবাজারে স্বাস্থ্য বিধি মেনে করোনা মহামারি থেকে বিশ্ববাসিকে মুক্তির প্রার্থান জানিয়ে শারদীয়া দূর্গোৎসব উদযাপনের প্রস্তুতি এগিয়ে চলছে। ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে প্রতিমা শিল্পীরা। প্রতিটি মন্ডপে এগিয়ে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ। কক্সবাজার জেলায় ২৯৯ টি মণ্ডপে দুর্গোৎসব পালিত হবে। তাতে প্রতিমা ১৪৪ টি এবং ১৫৫ টি ঘট পুজা। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভার সিদ্ধান্তের আলোকে ৭ দফা নির্দেশনা মেনে এবারের দুর্গোৎসব পালিত হবে।
পূজায় কোন উৎসব থাকছে না। রং ছিটাবে না। বাজি ফোটানো হবে না। শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপন হবে দুর্গোৎসব। ২৬ অক্টোবর বিজয়া দশমীর মাধ্যমে উপজেলা ভিত্তিক প্রতিমা বিসর্জন দিবে অর্চনাকারিরা। সামাজিক বিধি মেনে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে প্রধান প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হবে। এবারের দূর্গা দোলায় এসে গজে প্রস্থান করবে।
সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব বিধিমত উদযাপনের লক্ষ্যে পূজা কমিটিগুলো প্রয়োজনিয় প্রস্তুতি নিচ্ছে। পুলিশ প্রশাসনও স্বাস্থ্য বিধি বজায় রেখে পূজা অনুষ্ঠানের সকল ধরনের উদ্যোগ নিয়েছে।
আগামী ২২ অক্টোবর থেকে শুরু হতে যাচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয়া দূর্গা পূজা। ৫ দিনের উৎসবে মন্দিরে গিয়ে মায়ের কাছে প্রার্থনা করবে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা।
করোনা মহামারির কারনে এবছর অাড়ম্বর হচ্ছে না কোন মন্ডপে। মন্ডপগুলোতে চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ। শিল্পীর নিপুন হাতের ছোঁয়ায় মৃম্ময়ী প্রতিমা ধীরে ধীরে দেবী রূপ ধারন ১৪৪ টি প্রতিমা এবং ১৫ ৫ টি ঘট। জেলায় মোট ২৯৯ টি পূঁজা মন্ডপ স্থাপিত হচ্ছে।

প্রতিমা শিল্পীরা জানিয়েছেন, প্রয়োজনিয় উপকরণের মূল্য বাড়লেও বাড়েনি তাদের মজুরী ।
জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এবছর করোনা মুক্তির প্রার্থনা জানিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দূর্গাপূজা অনুষ্ঠানের সকল প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।
পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পূজা আয়োজনে সরকারি নির্দেশনাসমূহ মেনে চলার ব্যাপারে তারা সতর্ক থাকবে। দর্শকরা যাতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে সেজন্য সকলের কাছে আহবান জানানো হয়েছে।
শান্তি শৃংখলা রক্ষায় মন্ডপ গুলোতে সরকারি এবং স্থানীয় উভয় পর্যায়ের নিরাপত্তা ব্যাবস্থা নিশ্চিত করা হবে।
জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট রনজিত দাশ বলেন, জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ঘট পুজা দেয়া হবে ।
তিনি জানান, জেলায় এবারের পূজার জন্য সরকার থেকে ১৪৭ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। তা উপজেলা ভিত্তিক তারা বন্টন করে দিয়েছেন।
সন্ধ্যা বেলায় কোন দর্শনার্থীকে মণ্ডপে না যেতে অনুরোধ করেন সাধারণ সম্পাদক বাবুল শর্মা।
গত বছর জেলায় ২৯৬ টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হলেও এবছর তা থেকে তিনটি বেড়ে ২৯৯ টি পূজা মন্ডপ স্থাপিত হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019-2020 | কক্সবাজার ক্রাইম নিউজ
Theme Customized By Shah Mohammad Robel