রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম

খুনিয়াপালংকে উন্নয়নের মডেল ইউনিয়নে রূপান্তর করা হবে: এমপি কমল

সিসিএন
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ২০ বার পঠিত

কক্সবাজার-৩ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, অতীতে খুনিয়াপালং এর মানুষ যাকে বেশী ভোট দিয়েছে তিনিই কক্সবাজার-রামু আসন থেকে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন, কিন্তু প্রতিবারই বিএনপি-জামাত জোট ভোট নিয়ে প্রতারনা করেছে। তারা খুনিয়াপালং এর মানুষকে ঠকিয়েছে। তাদের সময়ের কোন উন্নয়ন চিত্র এ এলাকায় নাই।

বঙ্গবন্ধু কণ্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রের দায়িত্ব নেয়ার পর গ্রাম পর্যায়ে শহরের উন্নয়ন আজ খুনিয়াপালংও দৃশ্যমান। এ ইউনিয়নে বর্তমানে কোটি কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ চলমান। উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত রাখতে খুনিয়াপালং এর সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। ১২ অক্টোবর, সোমবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন ও পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি আরো বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকালে অন্যান্য এলাকার মতো কক্সবাজার-রামুর মানুষও অসহায় হয়ে পড়ে। মানুষের এ দুঃসময়ে বিএনপি নেতাসহ অনেকেই বাসাবন্ধি থাকলেও আমি সাইমুম সরওয়ার কমল শেখ হাসিনার কর্মী হিসেবে বাসায় বসে থাকি নাই। করোনা আক্রান্ত রোগীদের পাশে থেকে সেবা দিয়ে গেছি। যখন পিতার মৃতদেহের পাশে সন্তান, মায়ের পাশে কণ্যা, ভাইয়ের পাশে বোন যাচ্ছেনা। ঠিক ওই সময়ে আমি মৃতদেহ দাফন কাজে অংশ নিয়েছি। মানুষের মনে সাহস দিয়েছি। আমরা মানুষের কল্যাণের জন্য রাজনীতি করি। বিএনপি দলীয় সাবেক সাংসদরা রাজনীতি করে নিজের ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে সরকারি অর্থে রাস্তা-ব্রীজ করার জন্য।

এমপি কমল বলেন, খুনিয়াপালংএর বর্তমান চেয়ারম্যান সাংবাদিক আব্দুল মাবুদ এলাকার উন্নয়নে সদা তৎপর একজন জনপ্রতিনিধি। তিনি সার্বক্ষনিক খুনিয়াপালং ইউনিয়নের উন্নয়নের চিন্তা করে। আগামীতেও খুনিয়াপালং এর মানুষ আব্দুল মাবুদকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করলে এক বছরের মধ্যে খুনিয়াপালং এর প্রধান প্রধান রাস্তাসহ সকল প্রকার অবকাটামোগত উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করা হবে। তিনি এ এলাকায় একটি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করার আহবান জানিয়ে উক্ত প্রতিষ্ঠানে ১০ লক্ষ টাকা অনুদান দেয়ার কথা ঘোষনা করেন। তিনি ধর্ষন, ডাকাতি, সন্ত্রাস ও মাদকসহ সকল অপরাধ কর্মের বিরুদ্ধে সচেতন মহলকে সজাগ থাকার আহবান জানান।

সোমবার দুপুরে আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি খুনিয়াপালং ইউনিয়নের পাইনবাগান এলাকায় পৌঁছলে স্থানীয় চেয়ারম্যান সাংবাদিক আব্দুল মাবুদের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ জীপ, মাইক্রো, নোয়াহ, মোটরসাইকেল সহ শতাধিক গাড়ীর মোটর শোভাযাত্রা সহকারে প্রিয় নেতাকে বরণ করে নেন।

পরে আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি খুনিয়াপালং ইউনিয়নের পুর্ব ধেছুয়া পালং রহমানিয়া মদীনাতুল উলুম দাখিল মাদ্রাসার নব নির্মিত ‘ আলহাজ্ব মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমান ভবন’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন এবয় উক্ত ভবনের শুভ উদ্বোধন করেন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুনিয়াপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাংবাদিক আব্দুল মাবুদ, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল গণি সওদাগর, গর্জনিয়ার চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম। মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় মাদ্রাসার সুপার হাফেজ মাওলানা নুর আহমদ, কক্সবাজার জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রুস্তম আলী চৌধুরী, স্থানীয় সমাজ সেবক হোছাইন আহমদ, সাব্বির আহমদ. রামু উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক নীতিশ বড়ুয়া,  ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি মো. আব্দুল্লাহ বিদ্যুৎ মেম্বার, আবু তাহের মেম্বার, গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ অতিথি ছিলেন।

শেষে সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি খুনিয়াপালং ইউনিয়নের পূর্ব ধেছুয়াপালং কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পরিদর্শন, বাইন্যার দোকান হইতে কেচুবনিয়া -তুলাবাগান রাস্তার কার্পেটিং দ্বারা উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন, মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসা পরিদর্শন, কালুয়ারখলা মুক্তারের দোকান ষ্টেশন, কেচুবনিয়া, তুলাবাগান স্টেশন ও  কালারপাড়া ভাদিতলা বাসি আয়োজিত পথসভা বক্তব্য রাখেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019 | কক্সবাজার ক্রাইম নিউজ
Theme Customized By Shah Mohammad Robel