মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:২১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম

চকরিয়ায় কঠিন চীবর দানোৎসবে এমপি জাফর আলম

সিসিএন
  • আপডেট সময় শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৫ বার পঠিত

চকরিয়ায় উৎসবমুখর আমেজে শুরু হয়েছে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের অন্যতম বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব প্রবারণা পূর্ণিমা। ইতোমধ্যে প্রবারণা পূর্ণিমার সকল আয়োজন শান্তিপুর্ণভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষথেকে সকল বৌদ্ধ পল্লীগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

শুক্রবার থেকে বৈশ্বিক মহামারী করোনার কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চকরিয়া উপজেলার হারবাং, সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়ন ও চকরিয়া পৌরসভার ভাঙ্গারমুখ এলাকায় বৌদ্ধ মন্দির গুলোতে শুরু হয়েছে শুভ প্রবারণা পূর্ণিমা।

এদিন বিহারগুলোতে বুদ্ধপূজা, শিবলী পূজা, পঞ্চশীল ও অষ্টশীল গ্রহণ, কর্মদেশনা, ধ্যান অনুশীলন, প্রার্থনা, হাজারো প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও ফানুস উড়ানো হয়েছে। শনিবার পূজার সমাপনী। এ দিন আকাশে উড়ানো হয়েছে নানা রঙ্গের শত শত ফানুস। পহেলা নভেম্বর মাতামুহুরী নদী এবং হারবাংয়ের শাখাখালে জাহাজ ভাসার মধ্য দিয়ে উৎসবের সমাপনী হবে বলে নিশ্চিত করেছেন বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের শীর্ষ নেতা পরিমল বড়ুয়া। এই লক্ষ্যে বৌদ্ধ সম্প্রদায় ও বৌদ্ধ বিহারগুলোতে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

প্রবারণা পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) চকরিয়া পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের ভাঙ্গারমুখস্থ বিহারে কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম। বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারি পুলিশ সুপার (চকরিয়া সার্কেল) মো.তফিকুল আলম, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আলমগীর চৌধুরী, চকরিয়া থানার ওসি সাকের মোহাম্মদ যোবায়ের, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটু।

অনুষ্ঠানে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের শীর্ষ গুরু, ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ আলোচনা করেন। এতে উপস্থিত ছিলেন বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের নেতা পটল বড়ুয়া, বাবুল বড়ুয়া ছাড়াও স্থানীয় বৌদ্ধ বিহারের ধর্মীয় গুরু, বিহার কমিটির নেতৃবৃন্দ এবং সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।

কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠানের শুরুতে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের চকরিয়া-পেকুয়াসহ দেশ-বিদেশে অবস্থানরত সকল বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানান এমপি জাফর আলম। তিনি বলেন, এখন সারাবিশ্বে করোনা ভাইরাসের মহামারি বিদ্যমান আছে। এই পরিস্থিতি আমাদের দেশেও পরিলক্ষিত হচ্ছে। সেইজন্য সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রবারণা পূর্ণিমার আনন্দ উপভোগ করতে হবে।

এমপি জাফর আলম বলেন, আবহমানকাল থেকে এ দেশের বৌদ্ধ সম্প্রদায় বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা ও উৎসবমুখর পরিবেশে নানা উপচার ও অনুষ্ঠানাদির মাধ্যমে প্রবারণা পূর্ণিমা উৎসব পালন করে আসছে। এই উৎসব সর্বজনীন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সব মানুষের নিরাপদ আবাসভূমি।

তিনি ঘোষনা দিয়েছেন, ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সবার। এই নীতিতে চকরিয়া-পেকুয়ার মানুষ সম্প্রীতির মেলবন্ধন অটুট রেখে এগিয়ে যাচ্ছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019-2020 | কক্সবাজার ক্রাইম নিউজ
Theme Customized By Shah Mohammad Robel