মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
বাঁকখালী নদীতে নৌকা ভ্রমণে নিখোঁজ দুই যুবক পদ্মায় বসল ৩৩তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৫ কিমি নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুমের কুমির বিদেশে রফতানির পরিকল্পনা ঈদগাঁহতে মুক্তিযোদ্ধা ছুরুত আলম সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনে এমপি কমল চকরিয়ায় উপজেলা আ.লীগের উদ্যোগে শেখ রাসেলের জন্মদিন পালিত চকরিয়ায় ৪৬ পূজা মণ্ডপে নিরাপত্তায় প্রস্তুত প্রশাসন করোনায় শিশুদের ঘরেই পড়া চালিয়ে যাওয়ার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে ব্যবসায়ী ও পুলিশের মুখোমুখি সংঘর্ষ। সাংবাদিক সহ আহত ১০ : আটক ৮ টেকনাফে বিট পুলিশিং সমাবেশে ‘নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন রোধে সামাজিক পরিবর্তন গড়ে তুলতে হবে’ কক্সবাজারে মাদক ও নারী নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত

মেসিকে কিনতে চেয়েছিল রিয়াল!

সিসিএন
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩ বার পঠিত

লিওনেল মেসি ক্যারিয়ারের শুরু থেকে খেলেন স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনায়। এ ক্লাবে খেলেই অখ্যাত থেকে বিখ্যাত হয়েছেন এ ফুটবলার। আর সেই মেসিকেই কিনতে চেয়েছিল বার্সেলোনার চিরশত্রু রিয়াল মাদ্রিদ। সম্প্রতি জানা গেল এমন তথ্যই।

সময়ের দুই সেরা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসি। এ দুই ফুটবলারের প্রতিদ্বন্দ্বিতা উপভোগ করে পুরো ফুটবল বিশ্বই। তবে এই দুই তারকা যদি একদলে খেলে! গত মৌসুমে অসম্ভব এ ব্যাপারটাকে সম্ভব করার চেষ্টা করেছিল ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্তাস। রোনালদোর বর্তমান এ ক্লাব কিনতে চেয়েছিল মেসিকে। তবে তাদের সে স্বপ্ন পূরণ হয়নি। এছাড়া রোনালদোর সাবেক ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদও কিনতে চেয়েছিল মেসিকে। রিয়াল মাদ্রিদকেও ফিরিয়ে দিয়েছেন মেসি।

একের পর এক তারকা দলে টেনে রিয়াল মাদ্রিদকে নক্ষত্র আলোয় ভরিয়ে তোলা সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ চেয়েছিলেন সান্তিয়াগো বার্নাব্যু ঝলমল করে উঠুক আরও লিওনেল মেসির আলোয়। সেজন্য রোনালদোর পাশে মেসিকে খেলাতে টাকার বস্তা নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন রিয়াল সভাপতি।

ইতালিয়ান সাংবাদিক জিয়ানলুকা ডি মারজিও বলছেন, পেপ গার্দিওলার বিদায়ের পর ২০১৩ সালে খানিকটা নড়বড়ে অবস্থায় ছিল বার্সার পারফরম্যান্স। সুযোগে মেসির জন্য ২৫০ মিলিয়ন ইউরোর আকাশছোঁয়া দলবদলের প্রস্তাব দিয়েছিলেন পেরেজ। নিজের লেখা বই ‘গ্র্যান্ড হোটেল কালসিওমেরাকাতো’তে ডি মারজিও লিখেছেন, মেসি রাজি হলেই বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার হওয়ার অসাধারণ সুযোগ ছিল তার।

ডি মারজিও লিখেছেন, ‘নিজেদের স্টেডিয়াম সান্তিয়াগো বার্নাব্যুকে পুনর্গঠন করার জন্য ২৫০ মিলিয়ন ইউরো রেখেছিলেন পেরেজ। সেই টাকা দিয়েই মেসিকে আনতে চেয়েছিলেন।’

‘মেসির উত্তর ছিল বেশ কঠিন। তিনি সোজা বলে দিয়েছিলেন, রিয়ালে যাচ্ছি না। আপনারা শুধু শুধুই সময় নষ্ট করছেন।’

শুধু ডি মারজিও একাই এমন বলেছেন, তা কিন্তু নয়। ২০১৮ সালে ফুটবল লিকসেও বলা হয়েছিল মেসিকে পাওয়ার জন্য একবার জোর চেষ্টা করেছিল রিয়াল, আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের ইচ্ছার কারণেই সেটা সম্ভব হয়নি।

শুধু রিয়ালই নয়, মেসির ক্যারিয়ারের শুরু থেকে চেলসি, পিএসজি, ম্যানসিটির মতো ক্লাবগুলো ছয়বারের ব্যালন ডি’অরজয়ী মহাতারকার পেছনে ছুটছে। যেকোনো মূল্যে তাকে দলে চান এমন কথা বেশ কয়েকবার বলতে শোনা গেছে ইন্টার মিলান সভাপতি মাসিমো মোরাত্তিকে। বার্সা বাধা হয়ে না দাঁড়ালে হয়ত চলতি মৌসুমে ম্যানসিটির জার্সি গায়েই দেখা যেত এলএম টেনকে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019 | কক্সবাজার ক্রাইম নিউজ
Theme Customized By Shah Mohammad Robel