উখিয়ার রোহিঙ্গা শিবিরে দুর্বৃত্তের গুলিতে শিশু নিহত

কক্সবাজারের উখিয়ার ময়নারঘোনা ১৮ নম্বর রোহিঙ্গা শিবিরে সন্ত্রাসীদের গুলিতে এক শিশু নিহত হয়েছে। গুরুতর আহত হয়েছেন একজন রোহিঙ্গা নারী।

সোমবার (৩ অক্টোবর) রাত সোয়া একটার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানান উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী।

ওসি বেনারকে জানান, নিহত শিশু তামদিয়া আক্তার (১১) ওই শিবিরের বাসিন্দা মো. ইয়াছিনের মেয়ে। আহত দিল ফায়াছ (১৮) মো. নূরের স্ত্রী। তাঁরা দুজন সম্পর্কে ননদ ভাবী। বর্তমান দিল ফায়াছ কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

রোহিঙ্গা শিবিরে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক (অতিরিক্ত ডিআইজি) আমির জাফর বেনারকে বলেন, “মঙ্গলবার ভোররাতে উখিয়ার ১৮ নম্বর ময়নারঘোনা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এইচ-৫২ ব্লকে একদল দুর্বৃত্ত দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ওই বসত ঘরে হামলা করে।”

তিনি বলেন, “খবর পেয়ে এপিবিএন পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গেলে দূর্বৃত্তরা তাঁদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। আত্মরক্ষার্থে এপিবিএন সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছুড়লে দূর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে আহত দুইজনকে উদ্ধার করে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।”

ঠিক কী কারণে দুর্বৃত্তরা ঘটনা ঘটিয়েছে, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানান উখিয়া থানার ওসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *