উখিয়ায় এপিবিএনকে লক্ষ্য করে গুলি, বিদেশী অস্ত্র ও গুলিসহ আটক ২

উখিয়া প্রতিনিধি

কক্সবাজারের উখিয়া ক্যাম্পে রোহিঙ্গা বন্দুকধারীদের সাথে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) সদস্যদের গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় একটি আমেরিকান রাইফেল ও ৪৯১ রাউন্ড গুলি এবং একটি বিদেশী পিস্তল ও ৬ হাজার ৩০০ পিস ইয়াবাসহ দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৭ জুন) উখিয়া ৮ এপিবিএন কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ৮ এপিবিএন এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) কামরান হোসেন।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ১৫/২০ জনের একটি রোহিঙ্গা গ্রুপ ক্যাম্প ১৮ থেকে ক্যাম্প ২০ এর দিকে যাচ্ছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে ক্যাম্প ১৮ এর বিভিন্ন ব্লকে অবস্থান নেয় এপিবিএন সদস্যরা। রাত ১০টার দিকে ৫/৬ জন লোক ক্যাম্প ২০ এর দিকে আসতে দেখে এপিবিএন সদস্যরা তাদের চ্যালেঞ্জ করে। এসময় তারা এপিবিএন সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়লে আত্মরক্ষার্থে এপিবিএন সদস্যরা পাল্টা গুলি চালালে তারা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশী চালিয়ে পলেথিনে মোড়ানো একটি এসল্ট রাইফেল (COLT HARTFORD, USA) এবং ৪৯১ রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধার করা হয়।

এদিকে, এই ঘটনার পরবর্তী শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে ক্যাম্প ১৮ থেকে ক্যাম্প ১৫ এর ই/৬ ব্লকে ২ জন লোক পালিয়ে এসেছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ক্যাম্প ১৫ ব্লক ই/৬ এর মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে মোহাম্মদ হোছন (৩০) ও ব্লক সি/১ এর মোহাম্মদ হাসেমের ছেলে জাহেদ হোসেন (৩০) কে একটি নাইন এমএম পিস্তল, ৩ রাউন্ড গুলি ও ৬ হাজার ৩০০ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হয়।

গুলাগুলির ঘটনায় ধৃত দুই জন উপস্থিত ছিলো বলে প্রাথমিক তদন্তে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এই ঘটনায় আইনী প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন এপিবিএন এর এই কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.