উখিয়ায় চকলেটের লোভ দেখিয়ে আড়াই বছরের শিশু ধর্ষণ, ধর্ষক আটক

উখিয়ায় এক নর পশুর হাতে ধর্ষণের শিকার হয়েছে আড়াই বছরের এক শিশু কন্যা। বর্তমানে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে ওই শিশু।

হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস চৌধুরী অভিভাবকদের কাছ থেকে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে গ্রাম পুলিশের সহযোগিতায় নর পশু ধর্ষক দিলদার মিয়াকে আটক করে পুলিশের নিকট সোপর্দ করেছেন।
বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার হলদিয়া পালং ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সরকারি আশ্রয় প্রকল্পে এ ঘটনা ঘটে।
ভিকটিম শিশুর বাবা বলেন, মরিচ্যা এলাকার দিলদার মিয়া প্রতিদিন তার বাড়ির পাশে একটি বাড়িতে মাদক সেবন করতে যায়। বৃহস্পতিবার বাড়ির পাশে আমার আড়াই বছরের শিশুটি খেলা করছিল। এ সময় মেয়েকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে নির্জন স্থানে নিয়ে একা পেয়ে ধর্ষণ করে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে পালিয়ে যায়। দিলদার মিয়া পালিয়ে যাওয়ার সময় অনেকে তাকে দেখে ফেলেন।

পরে শিশুর কান্না শুনে আমার স্ত্রী এসে তাকে বীভৎস অবস্থায় উদ্ধার করে। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যানকে খবর দিলে তিনি দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন।
হলদিয়া পালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস চৌধুরী বলেন, ভিকটিমের বাবা বিষয়টি জানালে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থা করি। পরে ধর্ষককে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।
উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, এ ঘটনায় চেয়ারম্যান ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় রাতে অভিযুক্ত দিলদার মিয়াকে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
স্থানীয়রা জানান ভিকটিম শিশুকে প্রথমে উখিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । অবস্থার অবনতি দেখা দেওয়ায় তাকে সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.