পর্যটক হয়রানির অভিযোগে কক্সবাজারে দুই ফটোগ্রাফার আটক

কক্সবাজার প্রতিনিধি

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে পর্যটক হয়রানির অভিযোগে দুই ফটোগ্রাফারকে আটক করেছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) সকালে সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্ট থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- মো. গোলাম রাব্বি (ফটোগ্রাফার নম্বর ৩১৯) ও মো. মতিন হাওলাদার (ফটোগ্রাফার নম্বর ১০৬)।

কক্সবাজার ট্যুরিস্ট জোনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রেজাউল করিম ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন জানান, ভুক্তভোগী দুই পর্যটক তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করায় তাদের আটক করা হয়েছে।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ সম্পর্কে তিনি জানান, ফটোগ্রাফাররা এক পর্যটককে ছবি তোলার জন্য অনুরোধ করেন। ভুক্তভোগী পর্যটক বেশ কিছু ছবি তুলে দেওয়ার অনুমতিও দেন। কিন্তু ফটোগ্রাফার রাব্বি ৪০টি ছবি তুলে মোটা টাকা দাবি করেন। ছবিগুলো না নিতে চাইলে তাকে হুমকিও দেন।

আরেক ভুক্তভোগী পর্যটক ঢাকার নবাবগঞ্জ থেকে আগত মো. আশিক রানা (১৯) সাগরে গোসল করতে নামেন। এ সময় তার পাশে থাকা ফটোগ্রাফার মো. মতিন হাওলাদার ক্যামেরায় পানি লাগার অভিযোগে পর্যটককে কলার ধরে ওপরে নিয়ে এসে পাঁচ হাজার টাকা দাবি করেন। ঘটনাটি দায়িত্বরত ট্যুরিস্ট পুলিশ সদস্যদের নজরে আসলে সঙ্গে সঙ্গে পর্যটককে ফটোগ্রাফারের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় এবং ফটোগ্রাফারকে আটক করা হয়। ভুক্তভোগী পর্যটক ট্যুরিস্ট পুলিশের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দেন। উক্ত অভিযোগের ভিত্তিতে আটককৃত ফটোগ্রাফারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

সৈকতের প্রত্যেকটি পয়েন্টে ট্যুরিস্ট পুলিশের হেল্প ডেস্ক রয়েছে। তাই কক্সবাজার বেড়াতে এসে কোনো পর্যটক হয়রানির শিকার হলে তাদের ট্যুরিস্ট পুলিশের সহায়তা নেওয়ার আহ্বান জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রেজাউল করিম।

Leave a Reply

Your email address will not be published.