পেকুয়ায় গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে নারীর আঙ্গুল কর্তন

রেজাউল করিম রেজা পেকুয়া
কক্সবাজারের পেকুয়ায় গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে দুবৃর্ত্তরা গৃহবধূর হাতের কনিষ্ট আঙ্গুল কেটে ফেলে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।১৮ অক্টোবর (মঙ্গলবার) সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ মেহেরনামা নন্দীরপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। আহত গৃহবধূর নাম তাহেরা বেগম (৪০)। তিনি ওই এলাকার সৌদি প্রবাসী জিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বসতভিটার জায়গা নিয়ে তাহেরা বেগম ও আবদুল হামিদ গংদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। ঘটনার দিন সকালে আবদুল হামিদ তার স্ত্রী আনোয়ারা বেগম ও পুত্রবধূ বেবী নার্গিসসহ কয়েকজন মিলে তাহেরা বেগমের বেগমের বসতভিটায় গিয়ে গাছ কেটে ফেলে। এ নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এর জের ধরে আবদুল হামিদের পুত্রবধূ শাহাব উদ্দিনের স্ত্রী বেবী নার্গিস তাহেরা বেগমকে দা দিয়ে বাম হাতের কনিষ্ঠ আঙ্গুলে আঘাত করে। এ সময় ওই নারীর আঙ্গুল কেটে যায়। এ ব্যাপারে জখমী নারীর সন্তান মেহেদী হাসান হৃদয় ও ঈদফাকা হোসেন জানান, তারা অনেক আগে থেকে আমাদের মাকে মারপিটসহ নির্যাতন করছিল।

ঘটনার দিন দা নিয়ে মাকে কুপিয়ে জখম করে। মাটিতে ফেলে টানা হ্যাঁচড়া করে। তাহেরা বেগম জানান, ৬ মাস আগে আমার স্বামী সৌদি আরবে যান। বসতভিটায় ১৫ কড়া জায়গা নিয়ে তারা আমাকে হয়রানি করছে। দা নিয়ে কুপ দিয়েছে আঙ্গুলে। এরপর কাপড় ছোপড় ধরে টানা হ্যাঁচড়া করে। আমার স্বামী থাকতেও আমাকে অনেকবার মারধরসহ নির্যাতন করেছে। এখন এর মাত্রা আরো বেড়ে গেছে। পেকুয়া থানার ওসি ফরহাদ আলী জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *