ভাসানচর থেকে পালিয়ে আসা ১৮ রোহিঙ্গা কোম্পানীগঞ্জে আটক

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে ভাসানচর থেকে পালিয়ে আসা ১৮ রোহিঙ্গাকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। শনিবার (২৭ আগস্ট) রাত ১১টার দিকে তাদের কোম্পানীগঞ্জ থানায় সোপর্দ করা হয়। এর আগে ওইদিন রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বেড়িবাঁধ সংলগ্ন আলমগীরের দোকান এলাকা থেকে তাদের আটক করেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

আটক রোহিঙ্গা হলেন-ভাসানচর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৮৫ নম্বর ক্লাস্টারের মো. তৈয়ব (৩৮), সামসিদা বেগম (৩২), মো. রেন ওয়ান (১৪), তাসমিন আরা (১২), ইয়াসমনি আরা (১০), মো. আনাস (৮), জেসমিন আরা (৬), মো. ইয়াছের (৪), মো. কাওছার (২), শাহারা বেগম (২৭), সুফিয়া (১২), সুমাইয়া (১০), শাবনুর (৬), ৮৬ নম্বর ক্লাস্টারের ইয়াসমিন (৫), আজিজা (১৮), আজিজ খান (১), জাহিদ হোসেন (২২) এবং ৭১ নম্বর ক্লাস্টারের এবাদুল্লাহ (৩০)।

স্থানীয়রা ফারুক হোসেন জানান, গতকাল শনিবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার ৮ নম্বর চরএলাহী ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের আলমগীরের দোকান এলাকায় শিশুসহ কয়েকজন নারী-পুরুষ ঘোরাফেরা করছিলেন। বিষয়টি সন্দেহজনক হলে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে তারা নিজেদের রোহিঙ্গা বলে স্বীকার করেন। পরে তাৎক্ষণিক তাদের চর এলাহী ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে নিয়ে রাখা হয়। এরপর রাত সাড়ে ১১টার দিকে সেখান থেকে তাদের কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়।

এ ব্যাপারে কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাদেকুর রহমান বলেন, শনিবার দালালের মাধ্যমে ভাসানচর আশ্রয়ণ প্রকল্প থেকে চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যাওয়ার উদ্দেশে পালিয়ে আসেন আটক রোহিঙ্গারা। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী আটক রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.