যেকোনও বয়সে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ দেওয়ার আহ্বান শিক্ষামন্ত্রীর

যেকোনও বয়সে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে লেখাপড়ার সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

শুক্রবার (৪ নভেম্বর) জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিষয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উৎসব-২০২২ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘যেকোনও বয়সে বিদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে যান, নিজের দেশের বেলায় এত প্রতিবন্ধকতা কেন?’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘পাঁচ-ছয়টি বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া দেশের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষার মধ্যে এসেছে। এটি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকের অর্থ সাশ্রয়, তাদের হয়রানি কমাতে প্রয়োজন। আমরা তো নানান কিছু নিয়ে পাশ্চাত্যের দিকে তাকিয়ে থাকি। এখান থেকে পাস করে আমাদের দেশের মেধাবীরা সেসব দেশে পড়তে যান, গবেষণা করতে যান, আবার ফিরেও আসেন। সেসব দেশে ভর্তি হতে গেলে একটি মাত্র পরীক্ষা দিয়ে হার্ভার্ডে যেতে পারেন, এমআইটিতেও যেতে পারেন, একটি কমিউনিটি কলেজেও যেতে পারেন—তাহলে আমাদের দেশে একটি পরীক্ষা দিয়ে কেন সব বিশ্ববিদ্যালয়ে যেকোনও বিভাগে ভর্তি হওয়া যাবে না? সেখানে কেন এত মান নিয়ে প্রশ্ন ওঠে? ’

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির শর্ত প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আরেকটি বিষয় বলবো—আমাদের এত প্রতিবন্ধকতা কেন? একবারের বেশি দেওয়া যাবে না (ভর্তি পরীক্ষা)? এই বয়সের পর আসা যাবে না। আমরা তো বলছি জীবনব্যাপী শিক্ষা। তাই যদি হয়, যেকোনও শিক্ষায় যেকোনও মানুষ আসতেই পারে।’

তিনি বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় দেশের মানুষের টাকায় চলে, সেই বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন এত প্রতিবন্ধকতা? ভর্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতার দেয়ালগুলো তুলে দিতে হবে। ’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘যেখানে মুক্তবুদ্ধি, মুক্তচিন্তা চর্চার জায়গা করে দিয়েছেন জাতির পিতা, সেখানে মুক্তবুদ্ধির চর্চার বদলে বন্ধ করে দিচ্ছি দরজা? মনের দরজা জানালাগুলো একটু খুলে দিন। শিক্ষা গ্রহণের পথকে সুগম করি।’

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ওয়ার্ল্ড র‌্যাংকিংয়ে তুলে আনার বিষয়ে নজর দেওয়ার আহ্বান জানান শিক্ষামন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *