লন্ডনে বাকিংহাম প্যালেসে রাজার অভ্যর্থনায় প্রধানমন্ত্রীর যোগদান

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের অন্যান্য দেশের নেতাদের সঙ্গে বাকিংহাম প্যালেসে রাজা তৃতীয় চালস’র দেয়া অভ্যর্থনায় যোগ দিয়েছেন।
রাজা চালস ও কুইন কনসোর্ট ক্যামিলা পার্কার সদ্য প্রয়াত রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় যোগ দিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী ও রাজাদের সম্মানে এ অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।
রোববার সন্ধ্যায় (স্থানীয় সময়) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর ছোট বোন শেখ রেহানাও এ অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন।
প্রিন্স উইলিয়াম, কেট মিডলটন, প্রিন্স এডওয়ার্ড, সোফি উইসাক্স, প্রিন্সেস অ্যানি, তার স্বামী ভাইস অ্যাডমিরাল স্যার টিম লরেন্স ও ডিইক অ্যান্ড ডাচেস অব গ্লুসেস্টারসহ রাজপরিবারের অন্যান্য সদস্যগণ এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।
যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দায়িত্ব গ্রহণ করা নতুন রাজা ও কুইন কনসোর্ট-এর সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথাবার্তা বলেন।
তিনি বলেন, তারা নতুন রাজার মা প্রয়াত রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথকে নিয়ে কথা বলেন।
মুনা শেখ হাসিনার উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, ‘প্রয়াত রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কেবলমাত্র নতুন রাজা চালস’র মা’ই ছিলেন না, তিনি তাঁর কাছেও একজন মায়ের মতো ব্যক্তিত্ব ছিলেন।’
বাংলাদেশের প্রধামনমন্ত্রী নতুন রাজা ও কুইন কনসোর্টকে অভিনন্দন জানান।
মুনা উল্লেখ করেন, রাজা ও কুইন কনসোর্ট উভয়েই অক্টোবরে তাদের পূর্বনির্ধারিত বাংলাদেশ সফর স্থগিত হওয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেন।
তার উদ্ধৃতি দিয়ে বাংলাদেশ হাই কমিশনার বলেন, কুইন কনসোর্ট বলেছেন যে তার সিলেট ও সুন্দরবন সফরের পরিকল্পনা ছিল।
মুনা বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাজ্য, কানাডা ও নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী, নেদারল্যান্ডের রানি, ভারত ও নেপালের প্রেসিডেন্ট এবং বিশ্বের অন্যান্য নেতাদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।
এরআগে রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং তাঁর ছোট বোন শেখ রেহানা ওয়েস্টমিনিস্টার প্যালেসে যান এবং প্রয়াত রাণী এলিজাবেথের মরদেহের প্রতি তাঁদের শেষ শ্রদ্ধা জানান।
১৫ সেপ্টেম্বর শেখ হাসিনা রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ নিতে যুক্তরাজ্যে রাষ্ট্রীয় সফরে লন্ডনে পৌঁছান।
তিনি আজ সন্ধ্যায় (স্থানীয় সময়) জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) ৭৭তম অধিবেশনে অংশ নিতে নিউইয়র্কের উদ্দেশ্যে লন্ডন ত্যাগ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.