‘জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদ নির্বাচন অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক ছিল’

জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের সদস্য হিসেবে বাংলাদেশ জাতীয় ও বিশ্বব্যাপী—এর প্রচার ও সুরক্ষায় দৃঢ় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, বাংলাদেশ জাতিসংঘের একটি দায়িত্বশীল রাষ্ট্র এবং আগামী তিন বছরের জন্য মানবাধিকার পরিষদের নির্বাচিত সদস্য হিসেবে জাতীয় ও বিশ্বব্যাপী এর প্রচার ও সুরক্ষায় বাংলাদেশ দৃঢ় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

তিনি বলেন, মানবাধিকার একটি বা দুটি বিষয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়, বরং এর ক্যানভাস অনেক বড়।

উল্লেখ্য, গত ১১ অক্টোবর নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলের এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে চারটি শূণ্য আসনের ছয়জন প্রতিদ্বন্ধীতা করে এবং বাংলাদেশ সর্ব্বোর্চ্চ ভোট পেয়ে জয়লাভ করে।

নির্বাচন অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, এটি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ কারণ ২০১৮ থেকে এ পর্যন্ত যতগুলো আন্তর্জাতিক নির্বাচনে বাংলাদেশ অংশগ্রহণ করেছে, এটি তার মধ্যে সবচেয়ে প্রতিযোগিতামূলক ছিল। বাংলাদেশ ১৮৯ ভোটের মধ্যে ১৬০টি ভোট পেয়েছে বাংলাদেশ।

এ ধরনের তীব্র প্রতিযোগীতামূলক নির্বাচনের ফলাফল জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে মানবাধিকার উন্নয়ন ও এর সুরক্ষায় বাংলাদেশের দৃঢ় প্রচেষ্টা ও প্রতিশ্রুতির প্রতি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সুস্পষ্ট বহিঃপ্রকাশ বলে তিনি জানান।

এর আগে বাংলাদেশ ২০০৬, ২০০৯, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে মানবাধিকার পরিষদের সদস্য হিসাবে নির্বাচিত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *