টেকনাফে বিজিবির অভিযানে আইস ও ইয়াবা উদ্ধার

টেকনাফের শাহপরীরদ্বীপ এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১১ কোটি ৬০ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা মূল্যের ২ কেজি ১৪১ গ্রাম ক্রিস্টাল মেথ আইস ও ৩০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল শেখ খালিদ মোহাম্মদ ইফতেখার গণমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) ভোররাতে বিজিবি’র টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়ন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, অত্র ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ শাহপরীরদ্বীপ বিওপি’র দায়িত্বপূর্ণ বিআরএম-৪ হতে আনুমানিক ১৫০ গজ দক্ষিণ-পূর্ব দিকে জালিয়াপাড়া নামক এলাকা দিয়ে মাদকের একটি চালান বাংলাদেশে প্রবেশের নিমিত্তে একটি পরিত্যক্ত কাঠের নৌকায় লুকায়িত রয়েছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে ব্যাটালিয়ন অধিনায়কের সার্বিক দিক নির্দেশনায় টেকনাফ ব্যাটালিয়ন সদর হতে উপ-অধিনায়কের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টহলদল বর্ণিত এলাকায় গমন করে তল্লাশী অভিযান পরিচালনা করে। বিজিবি টহলদল কর্তৃক ব্যাপক তল্লাশীর পর শাহপরীরদ্বীপ জালিয়াপাড়ার নাফ নদীর কিনারায় একটি পুরাতন পরিত্যাক্ত কাঠের নৌকার পাটাতনের নীচে বিশেষ পদ্ধতিতে লুকায়িত অবস্থায় একটি প্লাষ্টিকের ব্যাগ উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃত ব্যাগের ভিতর হতে ১১ কোটি ৬০লক্ষ ৫০ হাজার টাকা মূল্যের ২কেজি ১৪১ গ্রাম ক্রিস্টাল মেথ আইস এবং ৩০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট (মালিকবিহীন অবস্থায়) উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। উক্ত এলাকায় মাদক পাচারকারীদেরকে আটকের নিমিত্তে টহল পরিচালনা করা হলেও কোন পাচারকারী কিংবা তাদের সহযোগীকে আটক করা সম্ভব হয়নি। উক্ত স্থানে অন্য কোন অসামরিক ব্যক্তিকে পাওয়া যায়নি বিধায় চোরাকারবারীদের সনাক্ত করাও সম্ভব হয়নি। তবে, চোরাকারবারীদেরকে সনাক্ত করার জন্য অত্র ব্যাটালিয়নের গোয়েন্দা কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

তিনি আরো জানান,উদ্ধারকৃত মাদকগুলো বিজিবির ব্যাটালিয়ন দপ্তরে রাখা হয়েছে। আইনী কার্যক্রম শেষে সেগুলো ধ্বংস করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.